বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দুর্বৃত্তের এসিড নিক্ষেপে ঝলসে গেছে যুবক।প্রচন্ড কুয়াশা ও শীতের সকালে কাজে ব্যাস্ত যশোর মনিরামপুরের চাষীরাকোম্পানীগঞ্জে কারিগরি কলেজের সম্মুখে দুটো মোটর বাইকের সংঘর্ষ।বিশ্বনাথে পুকুরে ডুবে প্রতিবন্ধী এক যুবতীর মৃত্যুনাসিরনগরে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা পাঠদান কার্যক্রম উদ্বোধনবিশ্বনাথে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সবজি-ফসলের ক্ষতির আশঙ্কারুপিয়া বেগমের আকুতি ছাতকে রাব্বি হত্যা মামলা আসামীদের ফাঁসির দাবীতে সংবাদ সম্মেলনসিলেটে শিক্ষার্থীরা গণপরিবহনে চলাচলে হাফ ভাড়া দিতে পারবেনম‌হেশখালী‌তে মৃত ম‌হিষের মাংস বিক্রয়কা‌লে পিতা পুত্র আটকবিশ্বনাথে এসআই বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহনের অভিযোগ

কুষ্টিয়া সওজ ফেরত পেল পে-অর্ডার জালিয়াতির টাকা

হাওড় বার্তা ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট শনিবার, ৬ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে

কে এম শাহীন রেজা, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি।।

কুষ্টিয়ার সৈয়দ মাছ-উদ রুমী সেতুর টোল আদায়ের টেন্ডারের পে-অর্ডার জালিয়াতির টাকা অবশেষে ব্যাংক ফেরত দিয়েছে। কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ শাকিরুল ইসলাম জানান, কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের ৮ম কিলোমিটারে অবস্থিত ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোল আদায়ের জন্য মেসার্স দৃষ্টি এন্টারপ্রাইজ এর সঙ্গে ৩ বছরের মেয়াদে ১২ কিস্তিতে পরিশোধ সাপেক্ষে চুক্তি সম্পাদন পূর্বক কার্যাদেশ প্রদান করা হয়।

চুক্তি মোতাবেক সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ইজারার দুই কিস্তির সমপরিমাণ টাকা নিরাপত্তা জামানত হিসেবে দুইটি পেঅর্ডার যাহা সাউথইস্ট ব্যাংক, কুষ্টিয়া শাখা কর্তৃক ইস্যুকৃত ২ কোটি, ৫০ লাখ ৯৪ হাজার ৫৩০ টাকা অত্র দপ্তরের জমা দেন। পরে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক হতে পে-অর্ডারের সত্যতা যাচাই করে কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের কোষাগারে জমা রাখা হয়। ইজারাদার পর্যায় ক্রমে ১ম কিস্তি হতে ৯ম কিস্তি সম্পূর্ণ টাকা এবং ১০ম কিস্তির আংশিক পর্যন্ত টাকা পরিশোধ করেন।

পরবর্তীতে ১০ম কিস্তির আংশিক এবং ১১ তম ও ১২ তম কিস্তির সম্পূর্ণ টাকা পরিশোধের জন্য ইজারাদারকে বার বার তাগাদা প্রদান করা হয়। কিন্তু ইজারাদার উক্ত কিস্তির টাকা পরিশোধ না করায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ইজারাদারের জমাকৃত জামানত হতে কিস্তির টাকা সমন্বয়ের জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন।

যার প্রেক্ষিতে গত ২৯ জুন ২০২১ তারিখে উক্ত পে-অর্ডার দুইটি নগদায়ন করে সরকারী কোষাগারে জমা প্রদানের নিমিত্তে সোনালী ব্যাংক কুষ্টিয়া প্রধান শাখায় জমা প্রদান করা হয়। কিন্তু সোনালী ব্যাংক সংশ্লিষ্ট ব্যাংক (সাউথইস্ট ব্যাংক) হতে উক্ত পে-অর্ডার কালেকশনে ব্যর্থ হওয়ায় তা অত্র দপ্তরে ফেরত প্রদান করার পর পে-অর্ডার জালিয়াতির বিষয়টি ধরা পড়ে।

পরবর্তীতে কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগ সংশ্লিষ্ট ইজারাদার ও ব্যাংককে উক্ত টাকা পরিশোধের জন্য পত্র প্রেরণ করে। কিন্তু তারা সে টাকা পরিশোধ না করায় ইজারাদার মেসার্স দৃষ্টি এন্টারপ্রাইজ ও সাউথইস্ট ব্যাংক, কুষ্টিয়ার বিরুদ্ধে ৪ জুলাই, ২০২১ তারিখে কুষ্টিয়া সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয় এবং বিজ্ঞ সরকারী কৌশলী, কুষ্টিয়াকে মামলা দায়েরের জন্য অনুরোধ করা হয়।

যেহেতু বিষয়টি দুদক কর্তৃক তদন্তের তফসিলভুক্ত, সেহেতু উপ-পরিচালক, সমন্বিত জেলা কার্যালয়, দুর্নীতি দমন কমিশন, কুষ্টিয়া বরাবর প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে দুর্নীতি দমন কমিশন কর্তৃক বিষয়টি তদন্ত এবং মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন আছে। সর্বশেষ গত ৩ নভেম্বর, ২০২১ তারিখে সাউথইস্ট ব্যাংক কর্তৃক পে-অর্ডার জালিয়াতির সম্পুর্ন অর্থ ২কোটি ৫০ লাখ ৯৪ হাজার টাকা একটি পে-অর্ডারের মাধ্যমে কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের নিকট জমা দেন।

সাউথইস্ট ব্যাংক কুষ্টিয়া শাখার বর্তমান ব্যবস্থাপক সোহেল রানা বলেন, পে-অর্ডারের ক্ষেত্রে সব দায় ব্যাংকের হওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের তদন্ত শেষে তাদের নির্দেশনা মোতাবেক পে-অর্ডারের টাকা ফেরত দেয়া হয়েছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-2281