শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শান্তিগঞ্জ উপজেলা পৌরসভায় রুপান্তরিত হবে- পরিকল্পামন্ত্রী আনোয়ারায় চেয়ারম্যানের অস্থায়ী কার্যালয়ে আগুনরাঙামাটি সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবীতে রাজস্থলী প্রেস ক্লাব প্রতিবাদ মানববন্ধন কুষ্টিয়ায় দুর্বৃত্তের গুলিতে জামাত নেতা মোস্তফার সহযোদ্ধা খুন -আটক -৪ভ্রমণপিপাসু ভিড় করছে সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়া হাওরে- হাওড় বার্তাহারিয়ে যাওয়া মোবাইল উদ্ধার করে পরবর্তীতে প্রকৃত মালিকের নিকট হস্তান্তর করলো পুলিশছাতকে শিক্ষ‌কের উপর হামলার ঘটনায় উপ‌জেলাজুড়ে নিন্দার ঝড়কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে পিস্তল,গুলি, জাল টাকা সহ মাদক ব্যবসায়ী আরজু গ্রেফতারকুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সহ তিন জনের নামে দুদকের মামলাখুলনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির জন্মদিন উপলক্ষে চুকনগর ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপন

ছাতকে বাজার রেলওয়ের একমাত্র কংক্রিট স্লিপার কারখানা ৩মাস বন্ধের পর আবারো উৎপাদন শুরু

হাসান আহমদ
  • আপডেট সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬৬ বার পড়া হয়েছে

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জের ছাতকে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ রেলওয়ের একমাত্র কংক্রিট স্লিপার কারখানাটি ৩ মাস বন্ধ থাকার পর মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) থেকে কারখানায় আবারো উৎপাদন শুরু হচ্ছে। কংক্রিট স্লিপার উৎপাদনে এটিই হচ্ছে দেশের একমাত্র সরকারি প্রতিষ্ঠান। পর্যাপ্ত কাঁচামাল প্রাপ্তির সুযোগ সুবিধা থাকার পরও রহস্যজনক কারণে বার-বার বাংলাদেশ রেলওয়ের নিয়ন্ত্রনাধীন দেশের একমাত্র কংক্রিট স্লিপার কারখানাটিকে হোঁচট খেতে হয়েছে। এজন্য স্থানীয় লোকজন রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দূর্নীতি ও অব্যবস্থাপনাকে দায়ী করেছেন।

দুর্নীতি, অনিয়ম আর অব্যবস্থাপনার কারণে প্রতিষ্ঠার ৩৩ বছরে বার-বার বন্ধ হয়েছে এ কারখানাটি। কারখানাটি বন্ধ থাকায় অনেক কর্মচারী বেকার সময় কাটাচ্ছেন এবং কারখানা সংশ্লিষ্ট শতাধিক শ্রমিকও বেকার হয়ে পড়েছেন। কারখানাটিতে উৎপাদন শুরু হলে এখানে শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে কর্মতৎপরতা ফিরে আসবে।

কংক্রিট স্লিপার তৈরীর অন্যতম উপাদান হচ্ছে সিমেন্ট, পাথর ও বালু। ছাতকে দেশের একমাত্র রাষ্ট্রায়ত্ব সিমেন্ট কারখানা রয়েছে। এছাড়া উন্নতমানের পাথর ও বালুর জন্য এ অঞ্চলের রয়েছে ব্যাপক সুনাম। সব কাঁচামাল এখানে পাওয়া গেলেও কংক্রিট স্লিপার তৈরীতে হাইটেনশন স্টিল রড ও এমসিআই স্টিল পাত ভারত থেকে আমদানী করতে হয়। এসব বিষয় মাথায় রেখেই সরকার ভারতীয় প্রযুক্তিতে ১৯৮৮ সালে মিটারগেজ রেল লাইনে স্লিপার ব্যবহারের জন্য ছাতকে কংক্রিট স্লিপার কারখানা প্রতিষ্ঠা করে। কারখানায় উৎপাদন সচল থাকলে প্রতি মাসে পাঁচ থেকে সাড়ে পাঁচ হাজার স্লিপার তৈরী করা সম্ভব। উৎপাদিত স্লিপার সারা দেশের মিটারগেজ রেললাইনে সরবরাহ করাও সম্ভব হয়। এ কারখানায় ব্রডগেজ কংক্রিট স্লিপার তৈরী সম্ভব বলে বিভিন্ন সময় রেলওয়ের প্রকৌশলীরা মতামত দিয়েছেন। তবে এ কারখানাটিকে আধুনিকায়ন করতে হবে।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) থেকে এ কারখানায় স্লিপার উৎপাদন আবারো শুরু হবে। এজন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন ছাতক রেলওয়ের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী নাজমুল হাসান।

ছাতক বাজার রেলওয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী (অঃদাঃ) আবুল কালাম আজাদ জানান, র‍্যাপিড সিমেন্টের অভাবে এ কারখানাটি বন্ধ ছিল।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-2281