রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৬:৪০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
হাওর বাঁচাও আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির তৃতীয় সম্মেলনে হাওর বিষয়ক মন্ত্রনালয় গঠনের দাবি।দূর্নীতির বিষবৃক্ষে জাতি দিশেহারা, মুখ বন্ধের শেষ কথায় ?সুনামগঞ্জের কুস্তি খেলার ইতিহাস ও ঐতিহ্য গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচনহজ্জের অন্তরালে অবৈধ ভাবে একাদিক বিয়ে করছেন আয়েশাছাতক-দোয়ারাবাজারে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের পুষ্টি গুণ বিস্কুট বিতরণ।শান্তিগঞ্জে নতুন করে যাত্রা শুরু করলো রুরাল ডেভেলপমেন্ট হেল্থ সেন্টার এন্ড ডায়াগনস্টিক।বিশ্বম্ভরপুর থানায় ব্রেস্ট ফিডিং কর্ণার ও লাইব্রেরির উদ্ভোধন। ছাতকে শিক্ষানুরাগী নুর মোহাম্মদ ময়না মিয়া’র ইন্তেকাল।হাওড়ের নেই মাছ : ঋনের চাপে দিশেহারা জেলে।বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব উপাধ্যক্ষ ড.মোঃ আব্দুস শহীদ এমপি অনলাইন ফোরামের উপদেষ্টা মনোনীত হলেন উম্মে ফারজানা ডায়না।

জগন্নাথপুরে বন্যার মধ্যে আগুনে পুড়ে কয়লা বসতঘর।

হাওড় বার্তা ডেস্ক
  • সংবাদ প্রকাশ সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪
  • ৯৫ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার: জগন্নাথপুর উপজেলার শ্রীরামসি (রসুলপুর) গ্রামে দরিদ্র এক পরিবারের ঘরে আগুন। ২৪ জুন সোমবার বিকাল ৪ ঘটিঘায় বসত ঘরটি আগুনে পুড়ে কয়লা। আগুনের সূত্র কোথায় থেকে বা কি ভাবে আগুন লেগেছে সেটার কারণ জানা যায় নি। স্ব জমিনে উপস্থিত হয়ে জানা যায়, শ্রীরামসি (রসুলপুর) বাসিন্দা মোহাম্মদ আব্দুর নূর, মিয়ার বসত ঘরে আগুন, এ ব্যপারে ঘরের মালিক আব্দুর নূর মিয়া বলেন, আমরা বন্যায় কবলিত হয়ে পড়ায়, অাশ্রয়ের জন্য উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আলহাজ্ব আকমল হোসেন সাহেবের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছি আমার পরিবারের সবাইকে নিয়ে। ঘরে মানুষ না থাকায় সেই সুবাধে কে বা কারা ষড়যন্ত্র করে আমার ঘরে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছ। আমরা সধু খাবার খাওয়ার জন্য সামান্য কিছু তালা বাসন নিয়ে এসেছি। বাকি সব জিনিসপত্র ঘরের ভেতরে ছিল পার্সপোট, ভোটের আইডি কার্ড, জাইগা জমির মূল্যবান কাগজপত্র সহ গুরুত্বপূর্ণ জিনিষপত্র আগুনে পুড়েছে। তিনি আরো বলেন, আমার এই বসত ঘরের মাঝে বিদ্যুৎের লাইনের সংযোগ নেই যা আগুন লাগার কোন কারণ হতে পারত! চতুর দিকে পানি মাঝখানো সধু বসত ঘরটা, আমার সঙ্গে কেউ পূর্বের শ থেকে হিংসা ষড়যন্ত্র করে আমার ঘরটি আগুন দিয়েছে। প্রায় ছয় থেকে সাত লক্ষ টাকার মালামাল ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তিনি আরো জানান,ঘরে মানুষ না থাকায় এই সুবিধায় আমাদের সাথে হিংসা করে এমন কাজ করেছে। এ ব্যপারে জানতে চাইলে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের সভাপতি র’ চাচাত ভাই আহব্বাব হোসোন বলেন, আমার বাড়ির পাশে বাড়ি আব্দুর নূরের বাড়ি, আমরা সবাই বাজারে ছিলাম, হঠাৎ দেখি আব্দুর নূরের বাড়ির পাশে আগুনো ধোয়া। তারপর আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি আব্দুর নূরের ঘর পুড়ে শেষ। তিনির দাবী তাদের সঙ্গে কেউ না কেউ দুশমনি করে ঘরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। কারণ এই ঘরের মধ্যে আগুন লাগার মত তেমন কোন ডিভাইস নেই, নেই বিদ্যুৎের সংযোগ, নেই গ্যাসের সংযোগ, সেই থেকে ধারনা করা হচ্ছে তাদের সঙ্গে কেউ দুশমনি করে ষড়যন্ত্র করে ঘরের ভেতর আগুন দিয়ে সমস্ত ঘর পুড়ে দিয়েছে। ঘরে থাকা মালামাল সব কিছু পুড়ে ছাই হয়েছে জানা যায়।

সর্বশেষ সংবাদ পেতে চোখ রাখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সব ধরনের সংবাদ
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর থেকে নিবন্ধনকৃত পত্রিকা। © All rights reserved © 2018-2024 Haworbarta.com
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-2281