সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৭:০১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সুসাসের উদ্যোগে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৫তম জন্মবার্ষিকী পালন।আল-ফজল ছাত্র সংসদের নবায়ন কমিটি গঠন: ভিপি আদনান, জিএস জাবের। ছাতকে রেমিট্যান্স যুদ্ধা জসিম উদ্দিন’র অর্থায়নে জালালাবাদ স্কুলে সিলিং ফ্যান প্রদান চেয়ারম্যান প্রার্থী আরিফুল ইসলাম জুয়েলকে নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদছাতকে প্রেমের টানে প্রেমিকার আত্মহত্যা।সুনামগঞ্জে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের মাধ্যমে ২৮৫ কৃষি উদ্যোক্তা পেলেন দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ।ইতালির মদেনায় বৈশাখী উৎসব উদযাপন। যারা নৌকার বিরোধীতা করে তাদের প্রতি সতর্ক থাকবেন : পলিন।শান্তিগঞ্জে সাদাত মান্নান অভি’র প্রচারণা সভা।নাসিরনগরে আফ্রিকান মাগুর ও জাটকা জব্দ করে মাদ্রাসায় বিতরণ।

আল্লামা ছালিক আহমদ ছাহেবের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন,,হাওড় বার্তা 

এম.ইব্রাহিম বিন আশ্রাফী
  • সংবাদ প্রকাশ শুক্রবার, ২৫ জুন, ২০২১
  • ৭০২ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার

সিলেটের প্রাচীনতম ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি বিদ্যাপীঠ সৎপুর দারুল হাদিস কামিল মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা ছালিক আহমদ ছাহেব আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। গতকাল ২৪ জুন বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭ টায় সিলেট নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তিকাল করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৩ বছর। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে ও তিন মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

শাইখুল হাদিস মাওলানা ছালিক আহমদ সিলেট জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নের ভূরকী গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত ধার্মিক পরিবারে ১৯৬৮ সালে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা পীর আবুল লেইছ ছিলেন এলাকার একজন স্বনামধন্য ব্যক্তিত্ব। তিনি ১৯৯০ সালে পার্শ্ববর্তী সৎপুর দারুল হাদীস কামিল মাদরাসা থেকে কৃতিত্বের সাথে শিক্ষাজীবন শেষ করে ১৯৯১ সাল থেকে শিক্ষকতা শুরু করেন। প্রথমে তিনি জকিগঞ্জ সিনিয়র ফাজিল মাদরাসা ও ইছামতি কামিল মাদরাসায় দু’বছর আরবি প্রভাষক হিসেবে শিক্ষকতার পর পরবর্তীতে ১৯৯৩ সালে সৎপুর দারুল হাদীস কামিল মাদরাসায় আরবি প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। তিনি এ মাদরাসায় প্রভাষক, অধ্যাপক, মুহাদ্দিস সর্বশেষ ইন্তিকালের পূর্ব পর্যন্ত উপাধ্যক্ষ পদে দায়িত্বরত ছিলেন। দীর্ঘ এ সময়ে তিনি হাদিসে নববীর খিদমতের পাশাপাশী দ্বীনের একজন বিদগ্ধ মুবাল্লিগ হিসেবেও দেশ-বিদেশে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেন। তিনি শুধু হাদিসে নববীর খিদমতেই ব্যাপৃত থাকেননি, ইলমে কিরাতের খিদমতেও তাঁর অবদান ছিল অসামান্য। তিনি ১৯৮১ সালে হযরত ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ (র.)-এর কাছ থেকে ইলমে কিরাতের সনদ লাভ করে দারুল কিরাত মজিদিয়া ফুলতলী ট্রাস্টের খিদমতে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছিলেন। তিনি দারুল কিরাতের ভূরকী হাবিবিয়া হাফিজিয়া দাখিল মাদরাসা শাখার দীর্ঘদিনের প্রধান ক্বারী ও নাযিম এবং প্রধান কেন্দ্রের পরীক্ষক ও পরিদর্শক হিসেবেও জীবনের শেষ অবধি কাজ করে গেছেন। মাওলানা ছালিক আহমদ (র.) ছিলেন একজন বিশিষ্ট আলিমে দ্বীন, মুহাদ্দিস, মুফাসসির ও ফকিহ ব্যক্তিত্ব। সীরতে-সুরতে, আমলে-আখলাকে সুন্নতে নববীর একজন যোগ্যতম উত্তরাধিকার।

বৃহস্পতিবার সকালে মাওলানা ছালিক আহমদ (র.)-এর ইন্তিকালের সংবাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশ-বিদেশে তাঁর আত্মীয়-স্বজন, শুভাকাংখী, সহকর্মী ও ছাত্রদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। দুপুর গড়াবার আগেই স্থানীয় ভূরকী গ্রামে তাঁর বাড়ীতে অশ্রু সজল নয়নে প্রিয়জনকে শেষবারের মতো একবার দেখতে জমায়েত হতে থাকেন শত শত মানুষ। একপর্যায়ে পুরো এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে যায়। বাদ আসর বৃষ্টি উপেক্ষা করে ভূরকী হাবিবিয়া হাফিজিয়া দাখিল মাদরাসা প্রাঙ্গণে হাজার হাজার মানুষের অংশগ্রহণে জানাযার নামাজের ইমামতি করেন মরহুমের বড় ছেলে মাওলানা হুসাইন মো. মাসরুর।জানাযা শেষে দুআ পরিচালনা করেন হযরত আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ (র.)-এর ছাহেবজাদা মুফতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী ফুলতলী। পরে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁর দাফন সম্পন্ন করা হয়।

এদিকে, জানাযার নামাজের পূর্বে মরহুমের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহ’র সভাপতি হযরত মাওলানা হুছামুদ্দীন চৌধুরী ফুলতলী, সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান, সৎপুর কামিল মাদরাসার অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা শফিকুর রহমান, বর্তমান অধ্যক্ষ মাওলানা আবু জাফর মুহাম্মদ নুমান, ইকড়ছই আলিম মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা ছমির উদ্দিন, বুরাইয়া কামিল মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা সিরাজুল ইসলাম ফারুকী, চান্দাইপাড়া ফাযিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ছরওয়ারে জাহান, হলিয়ারপাড়া ফাযিল মাদরাসার অধ্যক্ষ, আল ইসলাহর সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মঈনুল ইসলাম পারভেজ, বাংলাদেশ আনজুমানে তালামীযে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় সভাপতি দুলাল আহমদ, বিশ্বনাথ কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা নুমান আহমদ, রাখালগঞ্জ ফাযিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা শিহাব উদ্দিন, চান্দগ্রাম ফাযিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, ছাতক উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ওলিউর রহমান বকুল, বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা হাবিবুর রহমান, কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা ফজলুল হক খান শাহেদ, জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুস ছবুর, হাউসা আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আজিজ আহমদ, রসুলগঞ্জ আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবু ইউসুফ মানিক ও কুরুয়া আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আখতার আলী।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহ’র মহাসচিব মুফতী মাওলানা একেএম মনোয়ার আলী, বাদেদেওরাঈল কামিল মাদরাসা ফুলতলীর অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুর রহিম, ফতেহপুর কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ শামসুদ্দোহা, বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহর সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মাহমুদ হাসান চৌধুরী ফুলতলী, হযরত শাহজালাল দারুচ্ছুন্নাহ ইয়াকুবিয়া কামিল মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা আবু ছালেহ মো. কুতবুল আলম, সৎপুর কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা ছালেহ আহমদ বেতকুনী, ফুলতলী কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা নজমুল হুদা খান, বাংলাদেশ আনজুমানে তালামীযে ইসলামিয়ার সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা আজির উদ্দিন পাশা, মাওলানা নজীর আহমদ হেলাল, মাওলানা বেলাল আহমদ, মাওলানা ফখরুল ইসলাম, মাওলানা রেদ্বওয়ান আহমদ চৌধুরী ফুলতলী, মাওলানা আখতার হোসাইন জাহেদ, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মুজতবা হাসান চৌধুরী নুমান, সুনামগনজ জেলা আল ইসলাহর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মাহবুবুর রহমান তাজুল, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান, এলাহাবাদ আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবু তাহির মোঃ হুসাইন ও ষোলঘর আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আমিনুর রহমান, সৎপুর কামিল মাদরাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা রশীদ আহমদ চৌধুরী, প্রভাষক মাওলানা মুনির উদ্দিন, মাওলানা আব্দুল বাসিত ও শিক্ষক মাওলানা আলমগীর হোসাইন প্রমুখ।

সর্বশেষ সংবাদ পেতে চোখ রাখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সব ধরনের সংবাদ
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর থেকে নিবন্ধনকৃত পত্রিকা। © All rights reserved © 2018-2024 Haworbarta.com
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-2281