রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সুসাসের উদ্যোগে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৫তম জন্মবার্ষিকী পালন।আল-ফজল ছাত্র সংসদের নবায়ন কমিটি গঠন: ভিপি আদনান, জিএস জাবের। ছাতকে রেমিট্যান্স যুদ্ধা জসিম উদ্দিন’র অর্থায়নে জালালাবাদ স্কুলে সিলিং ফ্যান প্রদান চেয়ারম্যান প্রার্থী আরিফুল ইসলাম জুয়েলকে নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদছাতকে প্রেমের টানে প্রেমিকার আত্মহত্যা।সুনামগঞ্জে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের মাধ্যমে ২৮৫ কৃষি উদ্যোক্তা পেলেন দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ।ইতালির মদেনায় বৈশাখী উৎসব উদযাপন। যারা নৌকার বিরোধীতা করে তাদের প্রতি সতর্ক থাকবেন : পলিন।শান্তিগঞ্জে সাদাত মান্নান অভি’র প্রচারণা সভা।নাসিরনগরে আফ্রিকান মাগুর ও জাটকা জব্দ করে মাদ্রাসায় বিতরণ।

নাসিরনগরে উত্তর বাল্লা বিলের অবৈধ স্কীম বাতিলে স্মারকলিপি-হাওড় বার্তা

হাওড় বার্তা ডেস্কঃ
  • সংবাদ প্রকাশ বুধবার, ৯ জুন, ২০২১
  • ৬৪২ বার পড়া হয়েছে

নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়) প্রতিনিধিঃ জেলার নাসিরনগর ইউনিয়ন ও ভিটাডুবী ধীবর সনবায় সমিতি লিঃ এর সদস্যগণ ও এলাকার হাজার হাজার মৎস্যজীবি বিল উত্তর বাল্লা গাংকুল পাড়া মৎস্যজীবি সমবায় সমিতি লিঃ এর নামে ৬ বছরের স্কীম বাতিলে স্মারকলিপির পর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব এর তদন্ত প্রদান।

স্মারকলিপিতে জানান, নাসিরনগর ইউনিয়ন ও ভিটাডুবী ধীবর সমবায় সমিতির ৮৫৩ জন সদস্য রয়েছে। উক্ত সমিতির মাধ্যমে দুই ইউনিয়নের প্রায় ১০(দশ) হাজার মৎস্যজীবি এবং জেলে সম্প্রদায় তাদের জীবন জীবিকা জন্য একমাত্র বিল উত্তর বাল্লা।সমিতির সভাপতি/ সাধারণ সম্পাদক জানতে পারে এই বিল উত্তরবাল্লা গাংকুলপাড়া মৎস্যজীবি সমিতির নামে স্কীম মাধ্যমে দেয়ার জন্য আবেদন করেছে। গাংকুলপাড়া সমিতির নামে বিল উত্তরবাল্লা দেয়া হলে ২ টি ইউনিয়নের ১০ (দশ) হাজার জেলে ও মৎস্যজীবি সম্প্রদায় অনাহারে মারা যাবে। তাছাড়া আইন শৃঙ্খলার মারাত্মক অবনতি হতে পারে।উক্ত সমিতির সভাপতির নামের স্বাক্ষর জালিয়াতিসহ নাসিরনগর ইউনিয়ন ও ভিটাডুবী ধীবর সমিতির একাধিক সদস্যকে গাংকুলপাড়া সমিতির সদস্য অন্তর্ভুক্ত করেছে যা সমবায় আইনে দন্ডনীয় অপরাধ। স্মারকলিপি প্রদানের পর ৮ জুন মঙ্গলবার উপজেলা সম্প্রসারণ প্রশাসনিক ভবন মিলনায়তনে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব দুই সমিতির সদস্যদের উপস্থিতিতে তদন্ত কার্যক্রম সম্পন্ন করেন। তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করার সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, রাফি উদ্দিন আহম্মদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হালিমা খাতুন, জেলা সমবায় কর্মকর্তা, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা শুভ্র সরকার, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা ফারহানা খন্দকার ও থানা অফিসার ইনচার্জ তদন্ত আ স ম আতিকুর রহমান। তদন্ত কার্যক্রমের পর হাজার হাজার জেলে ও মৎস্যজীবি উপস্থিতি দেখে তিনি জানান, এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সাথে আলাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

সর্বশেষ সংবাদ পেতে চোখ রাখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সব ধরনের সংবাদ
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর থেকে নিবন্ধনকৃত পত্রিকা। © All rights reserved © 2018-2024 Haworbarta.com
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-2281