শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০২:৪৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সুনামগঞ্জের বোরো ফসল নিয়ে উৎকণ্ঠায় কৃষক প্রধানমন্ত্রী হাওরবাসীর খোঁজ-খবর রাখছেন- রনজিত চন্দ্র সরকার এমপিসুনামগঞ্জে বই বিনিময় উৎসব অনুষ্ঠিতছাতকে মাটি ভরাট নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, গ্রেপ্তার ১উৎসবমুখর পরিবেশে শান্তিগঞ্জ প্রেসক্লাবের বার্ষিক বনভোজন সম্পন্ন। জগন্নাথপুরে সঙ্গীত গাওয়াকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত-২,গ্রেপ্তার-১.কক্সবাজারে ব্লু-গার্ডেদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজনশান্তিগঞ্জে মানব সেবায় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ছাদিকুর রহমান বাছন। জামালগঞ্জ-সাচনাবাজার নদী পারাপারে জনদূর্ভোগ নিরসনে মানববন্ধনমিষ্টি সকাল হীমেল হাওয়া: আশিক হাসান সীমান্ত। সুনামগঞ্জে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারেনি ২৯ হাজার ৪৫৫ শিক্ষার্থী।

শান্তিগঞ্জে তাসনীমের আত্নহত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন।

হাওড় বার্তা ডেস্ক
  • সংবাদ প্রকাশ মঙ্গলবার, ৮ মার্চ, ২০২২
  • ১২৬ বার পড়া হয়েছে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ (শান্তিগঞ্জ) উপজেলাস্থ নোয়াখালী বাজারে তাসনীম আত্নহত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ই মার্চ) সকাল ১০ ঘটিকায় শতাধিক লোকজনের উপস্থিততে এক শান্তিপূর্ণ মানববন্ধনের আয়োজন করে এলাকাবাসী। মানববন্ধনে তাসনিমের পরিবারবর্গসহ সহ উপস্থিত ছিলেন এলাকার জনসাধারণরা। মানববন্ধনে তাসনিমের আত্নহত্যার সুষ্ঠু তদন্ত এবং অপরাধী বাবুল দাসকে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনার জোর দাবী জানান বক্তরা।

মানববন্ধন শেষে তাসনীমের পিতা জাহাঙ্গীর আলী জানান,তিনি বলেন মির্জাপুর গ্রামের শৈলেন দাসের ছেলে বাবুল দাস আমার মেয়েকে প্রেমের প্রলোভন দেখিয়ে তার সর্বস্ব লুটে নিয়ে ইজ্জত বিনিনষ্ট করে দেয়। আমার মেয়েকে বিয়ে করবে বলে প্রতিনিয়ত আমার মেয়ের সাথে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত থাকতো। আমরা যখন বিষয়টি বুঝতে পারি। তখন আমার মেয়ে তাসনীম বাবুল দাসকে বিয়ের চাপ দিলেও সে আমার মেয়েকে গ্রহন করতে অস্বীকার জানায়। কিন্তু আমার মেয়ে তাকে ধর্মান্তরিত হয়েও বিয়ে করতে বলে কিন্তু সে কোনো মতেই রাজি হয়নি। পরবর্তীতে আমার মেয়ে তাসনীম বিয়ের দাবিতে বাবুল দাসের বাড়িতে চলে গেলে বাবুল দাস সহ তার পরিবারের সকলে আমার মেয়েকে শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন করে। এবং আমার মেয়েকে দুঃশ্চরিত্রা বলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে অপমানিত করে। তাসনীম লজ্জিত হয়ে বাড়িতে এসে বাবুল দাস পরিবার অপমান সহ্য না করতে পেরে আত্নহত্যার পথ বেছে নেয়।

পরবর্তীতে তাসনীম ২৮ শে ফেব্রুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ভোর ৫ টার দিকে বিষপান করে। আমরা টের পেয়ে সাথে সাথে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যাই হাসপাতালে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আমি বাদী হয়ে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ (শান্তিগঞ্জ) থানায় নং ১২ ধারা ৩০৬/৩০২ বাবুল দাসের নামে একটি মামলা দায়ের করি।

তিনি আরো বলেন বাবুল দাস যদি আমার মেয়েক্র প্রেমের প্রলোভন দেখাতো না। এবং আমার মেয়ের ইজ্জত নষ্ট করত না। তাহলে অকালে আমি মেয়ে হারা হতাম না, পিতা হিসাবে এখন আমি তাসনীম আত্নহত্যার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে সঠিক বিচার চাই।

এই বিষয় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ (শান্তিগঞ্জ) থানার ইনচার্জ মোস্তফা কামাল বলেন এ ঘটনায় প্রাথমিক অভিযোগগুলোর প্রমাণ পাওয়া গেছে ও পরবর্তীতে এ বিষয়ে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনা হবে।

সর্বশেষ সংবাদ পেতে চোখ রাখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সব ধরনের সংবাদ
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর থেকে নিবন্ধনকৃত পত্রিকা। © All rights reserved © 2018-2024 Haworbarta.com
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-2281