রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৩১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বড়খাল স্কুল এন্ড কলেজের নির্বাচন সম্পন্ননাসিরনগরে “জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ” এর পুরস্কার বিতরণ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিতচৌহালি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বিদায় সংবর্ধনা।চৌহালী উপজেলার সাধারণ মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারতারুণ্যের সাহিত্য ম্যাগাজিন “কালের পথিক” এর বিজয় দিবস ২য় সংখ্যায় লেখা আহ্বাননাসিরনগর হাসপাতালে সিজারে নবজাতক শিশুর জন্ম,  মা ও শিশুর হাতে এমপি’র উপহারনাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত।মাশরাফির সাথে সিলেট স্ট্রাইকার্স হয়ে কে কে মাঠ মাতাবেন, দেখে নিনসুনামগঞ্জের মেয়ে নীপা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্বর্ণপদক গ্রহন করছে

রাস্তা না কি মরণফাঁদ ঘুমিয়ে কতৃপক্ষ

বি এম বাবলুর রহমান
  • আপডেট বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৫৮ বার পড়া হয়েছে

সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি 

উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশ যখন উন্নয়নের ফুলঝুরিতে। তখনি কোন রুপ উন্নয়নের প্রলেপ লাগেনি পাটকেলঘাটা হাইস্কুল রোড় সহ সকল রাস্তা।

সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানা। এই থানা জেলার বানিজ্যিক এলাকা হিসাবে অতি পরিচিত হলেও নেই অবকাঠামোগত উন্নয়নের ধারা। সকল প্রকার সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত পাটকেলঘাটা। বিভিন্ন পত্রিকায় বার বার সংবাদ প্রকাশ করার পরেও হতাশা প্রকাশ করেছেন বাজার ব্যাবসায়ীরা।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে পাটকেলঘাটা আদর্শ বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় এর সামনে রাস্তা এখন পানির নিচে। এছাড়া বাজারের মূল-সড়ক বছর তিনেক চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।আর এখন তো বাজারে কালীবাড়ি রোড়,বল ফিল্ড রোড়, পল্লী বিদ্যুৎ রোড় সহ বাজারে সকাল রাস্তা পানির নীচে তলিয়ে গেছে, হয়ে গেছে বড় বড় গর্ত । পাটকেলঘাটা বাজারে ২২ শত এর বেশি ব্যাবসায়ী প্রতিষ্ঠান এবং এখানে রয়েছে জেলার অন্যতম গরুর হাট সেখান থেকে প্রতি বছরে প্রায় ৫০ লক্ষাধিক টাকা রাজাস্ব আসে সরকারের।

ভ্যানচালক মহিউদ্দিন এর সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, কি বলবো, কে শুনবে, বলে কি লাভ,অনেক বলেছি আর বলবো না, পারবেন আমার ভ্যানগাড়ি গর্তে পড়ে ব্যাটারী ভেঙেছে কিনে দিতে পারবেন। এমন আকুতি হাজারো পথচারী ও ব্যাবসায়ীদের। সরকারী রাজনৈতিক দলকে স্থানীয় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতারা তো সরাসরি মাননীয় সংসদ (সাতক্ষীরা- ১)এর দিকে অভিযোগের তীর ছুঁয়েছেন।

পাটকেলঘাটা বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এসে এম আলাউদ্দীন জানান, তিন চার বছর ধরে এমন অবস্থায় তারা ব্যাবসা করছেন।সকল প্রতিকুলতা পেরিয়ে মালামাল আনা নেওয়া অসম্ভব হয়ে গেছে। গত মাসে বাজারে চাঁদা তুলে বালু ইট খোয়া দিয়ে কিছু গর্ত পুরুণ করেন। সেটা যতা যত না বিধায় দু -এক দিনের মধ্যে আবারো নিজেদের উদ্যোগে কিছু সংষ্কারের চেষ্টা করবেন বলে আশাবাদী তিনি।

তালা উপজেলা প্রকৌশলী কর্মকর্তা রথীন্দ্রনাথ হালদার রাস্তায় বেহাল দশার কথা স্বীকার করে জানান তাদের অফিসের পক্ষ থেকে এই রাস্তা গুলো সংষ্কারের জন্য এস্টিমেট পাঠানো হয়েছে অনেক আগেই। তিনি আরো আরো জানান এটা তাদের হাতে তো সব না তারা তাদের দ্বায়িত্ব উদ্ধত কতৃপক্ষের কাছে প্রেরণ করেন । তিনি জানান করোনা সংক্রমণের কারণে বিলম্ব হচ্ছে তবে অতি দ্রুত কাজ হতে পারে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি।

সর্বশেষ সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

সব ধরনের সংবাদ পেতে ক্লিক করুন।
দৈনিক হাওড় বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2019
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-2281