মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৬:২৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ

সাতক্ষীরার তালা উপজেলা কাজুবাদাম উৎপাদনে সম্ভাবনাময় এলাকা

মোঃ লিটন হুসাইন
  • আপডেট শনিবার, ৭ আগস্ট, ২০২১
  • ৫৭৪ বার পড়া হয়েছে

তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি

বিদেশী ফসল কাজুবাদাম এদেশে চাষ করা সম্ভব নয়। কিন্তু অসম্ভবকে সম্ভব করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন তালার মোঃ রফিকুল ইসলাম।

কাজুবাদাম দামে চড়া দেশে খুচরা বাজারে প্রতি কেজি কাজু বাদাম বিক্রি হয় ৮শত থেকে ১ হাজার টাকায়। কাজু বাদাম সাধারণত খাগড়াছড়ির , নারানখাইয়া, পানখাইয়াপাড়া, কমলছড়ি জামতলী ,ও পার্বত্য চট্টগ্রামে এলাকায় কিছু টা চোখে পড়ে। এসব এলাকায় কাজুবাদাম চাষ সম্প্রসারণের উজ্জ্বল সম্ভাবনা দেখছেন কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট।

বিশেষ করে পাহাড়ি অঞ্চল কে হটিয়ে সাতক্ষীরা তালা উপজেলায় ব্যাপকভাবে কাজুবাদাম চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছেন এই কৃষক। মোঃ রফিকুল ইসলাম সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার শিবপুর গ্রামের মরহুম কেরামত আলী খাঁ এর ছেলে। রফিকুল ইসলাম একজন অবসরপ্রাপ্ত সাবেক সেনা সদস্য।তিনি এখন বিভিন্ন ফলজের নতুন কিছুর উৎভবনের চেষ্টায় অব্যহত আছেন

কিন্তু এবার সকল অসম্ভবনার অবসান ঘটিয়ে দেশের উপকূলীয় অঞ্চল তালা উপজেলায় চাষ হচ্ছে কাজুবাদামের।কৃষি প্রেমী মোঃ রফিকুল ইসলাম তার মিষ্টি পানির মৎস্য ঘেরের বেড়ীবাঁধের উপর রোপন করেন পাঁচটি কাজুবাদাম গাছ। চাষ করার পর ফলন ধরেছে দুই বছর। কাজুবাদাম প্রক্রিয়াজাতকরণ করতে শুরু করেছেন এই কৃষক। শুধু বীজ থেকে নয় কলম পদ্ধতিতে দ্রুত বংশবিস্তারের বিকাশ ঘটিয়েছেন।

মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান তিনি পাঁচ বছর আগে এই কাজুবাদামের চাষ করেছেন। গতবছর ও এবছর গাছে কাজুবাদাম ধরেছে। কাজু বাদামের বীজ গুলো চারা দেওয়ার জন্য রেখেছেন। বাড়িতে বীজ রোপন করে নতুন চারা ও গজিয়েছে। তাছাড়া গাছে কলম পদ্ধতিতে গাছের বংশবিস্তারের চেষ্টা করছেন বলে তিনি জানান। সংবাদকর্মীদের সাথে একান্ত সাক্ষাতে তিনি বলেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজুবাদাম চাষের গবেষণা ও পিএইসডি অধ্যায়নরত কৃষিবিদ জাকিয়া সুলতানা কে দেখে এই কাজুবাদাম চাষের প্রতি উদ্বুদ্ধ হয়েছেন।এই কাজুবাদাম চাষের জন্য তার কাছ থেকে কিছু বীজ এনে বাড়িতে চারা উৎপাদন করেন। মোঃ রফিকুল ইসলাম আরো জানান শারীরিক উপকারিতার দিক থেকে কাজুবাদামের কোন বিকল্প হয় না। এতে উপস্থিত প্রোটিন, এ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ এবং ভিটামিন নানাভাবে শরীরের উপকারে লেগে থাকে। তাই তিনি মানবসেবা কে পরম সেবা হিসাবে মনে করে এই কাজুবাদামের চাষ করতে আগ্রহী হয়েছেন।

তালা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাজিরা খাতুন জানান কাজুবাদাম একটি বিদেশী ফল দেশে পাহাড়ী অঞ্চলে এই ফলের চাষ হয়ে থাকে । তালা উপজেলায় কাজুবাদামের চাষ হয়েছে অফিসের পক্ষ থেকে প্রদর্শনী প্লট করেছেন।গত বছর থেকে গাছে কাজুবাদাম ধরেছে। সাতক্ষীরা তথা তালা উপজেলায় কাজুবাদাম চাষের বিস্তার ঘটার সমূহ সম্ভাবনা দেখছেন তালা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

উপ-পরিচালক কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সাতক্ষীরা মোঃ নুরুল ইসলাম জানান কাজুবাদাম সাধারণ পাহাড়ী অঞ্চলে চাষ হয় । সাতক্ষীরা জেলায় তেমন চাষের সম্ভাবনা দেখছেন না।তবে তালা উপজেলা তিনি দেখেছেন মৎস্য ঘেরের বেড়ীবাঁধের উপর কাজুবাদাম চাষ। সাতক্ষীরা জেলায় এই প্রথম চাষ বলে তিনি মনে করেন।তালা উপজেলা সাতক্ষীরা জেলা সমূহে ব্যাপকভাবে কাজু বাদাম চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা বলে তিনি মনে করেন।

সর্বশেষ সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

সব ধরনের সংবাদ পেতে ক্লিক করুন।
দৈনিক হাওড় বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2019
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-2281